Connect with us

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়

অ্যান্টিবায়োটিকের মোড়ক হবে লাল, যথেচ্ছ ব্যবহার রোধে হচ্ছে আইন

Published

on

সহজে শনাক্তের জন্য অ্যান্টিবায়োটিকের মোড়ক হবে লাল রংয়ের। একই সঙ্গে এ অ্যান্টিবায়োটিকের যথেচ্ছ ব্যবহার রোধে আইন হচ্ছে বলেও জানিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

মঙ্গলবার (৪ অক্টোবর) সচিবালয়ে অ্যান্টিবায়োটিকের যত্রতত্র ব্যবহার রোধে করণীয় নিয়ে সভা শেষে সাংবাদিকদের এ কথা জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

তিনি বলেন, ‘দেখা গেছে যথেচ্ছ অ্যান্টিবায়োটিক ব্যবহারের কারণে বিশ্বের প্রায় ১৫ লাখ মানুষ মৃত্যুবরণ করেন। বাংলাদেশেও অ্যান্টিবায়োটিকের যত্রতত্র ব্যবহারের কারণে বিপুল সংখ্যক মানুষের বিশেষ বিশেষ রোগের ক্ষেত্রে অ্যান্টিবায়োটিক কার্যকর হয় না। তারা অসুস্থ হয়ে পড়েন, তাদের সুস্থ করতে হলে কঠিন একটা পরিস্থিতির মধ্যদিয়ে যেতে হয়। চিকিৎসার মাধ্যমেও অনেক সময় রোগ ভালো করা যাচ্ছে না।’

মন্ত্রী বলেন, ‘আমরা এর সমাধান খুঁজে বের করার জন্য বসেছিলাম। আমরা দেখেছি, কারণগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বড় কারণ (যথেচ্ছ ব্যবহার) হচ্ছে, আমরা প্রেসক্রিপশন ছাড়া অ্যান্টিবায়োটিক বেচাকেনা করছি। আবার আমরা কোর্স শেষ করি না। যখন দুটি ওষুধ খাই ভালো লাগে, আমরা আর খাই না।’

‘বিশ্বের কোথাও প্রেসক্রিপশন ছাড়া অ্যান্টিবায়োটিক ব্যবহার হয় না, বিক্রিও হয় না। কিন্তু আমাদের দেশে যে কেউ প্রেসক্রিপশন ছাড়া ফার্মেসি থেকে এন্টিবায়োটিক কিনতে পারেন একং সেবন করেন। এটা দীর্ঘমেয়াদে স্বাস্থ্যের ওপর বিরাট নেতিবাচক প্রভাব ফেলে।’

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা আরও একটি বিষয় দেখেছি, অ্যান্টিবায়োটিকের প্রয়োজন না থাকলেও অ্যান্টিবায়োটিক ব্যবহার হচ্ছে। যেখানে কম ক্ষমতা অ্যান্টিবায়োটিক ব্যবহার করলে হয়, সেখানে উচ্চ ক্ষমতার অ্যান্টিবায়োটিক ব্যবহার হয়। এটা একটা বড় বিষয়।’

মাছ-মাংসসহ বিভিন্ন খাদ্যে অ্যান্টিবায়োটিক পাওয়া যাচ্ছে জানিয়ে জাহিদ মালেক বলেন, ‘প্রাণির খাদ্যে অ্যান্টিবায়োটিক ব্যবহার করায় এটা হচ্ছে। আমাদের শরীরে অ্যান্টিবায়োটিক রেজিস্টেন্স তৈরি হচ্ছে।’

অ্যান্টিবায়োটিকের যথেচ্ছ ব্যবহার রোধে আইনের দুর্বলতা রয়েছে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘আমরা একটা আইনের অপেক্ষায় আছি। আইনটা নতুনভাবে তৈরি হচ্ছে। এখানে ব্যবহারের বিষয়ে অনেক নিয়ম-কানুন থাকবে।’

‘অ্যান্টিবায়োটিক নিয়ন্ত্রণের জন্য সচেতনতা বাড়াতে হবে। অ্যান্টিবায়োটিকের ওপর তদারকি বাড়াতে হবে। সেটা আমরা করবো। আমরা ওষুধ প্রশাসনকে নির্দেশনো দিয়েছি। যে ফার্মেসির লাইসেন্স থাকবে না, তারা ওষুধ বিক্রি করতে পারবেন না। লাইসেন্স পেতে হলে বিধিবিধান ও প্রয়োজনীয়তা মানতে হবে।’

স্বাস্থ্যমন্ত্রী আরও বলেন, ‘আমরা এটাও চাইবো কোন ফার্মেসি যাতে বিনা প্রেসক্রিপশনে অ্যান্টিবায়োটিক বিক্রি না করে। জনগণকে সচেতন করার জন্য, চেনার জন্য, বুঝার জন্য অ্যান্টিবায়োটিকের মোড়কের মধ্যে লাল রং দেওয়ার ব্যবস্থা হয়েছে।’

Advertisement
Click to comment

ক্যারিয়ার

জনস্বাস্থ্য ডেন্টিস্ট্রি বিভাগে পদসৃজন -(নিপসম)

Published

on

জনস্বাস্থ্য ডেন্টিস্ট্রি বিভাগে পদসৃজনঃ

ডেন্টাল পাবলিক হেলথ বিডিএস কারিকুলামে অন্তর্ভূক্ত থাকলেও জাতীয় পর্যায়ে গবেষণা ও বিশেষজ্ঞ তৈরীর ক্ষেত্রে এই বিষয়টি বহুকালব্যাপী অবহেলিত অবস্থায় ছিল।

এর অবসান ঘটিয়ে ১৭ ই জুলাই ২০২২ গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের অর্থমন্ত্রণালয়ের অর্থ বিভাগ একটি জিও(সরকারী আদেশ) প্রকাশ করে যেখানে “জনস্বাস্থ্য ডেন্টিস্ট্রি” বিভাগ এবং সেই বিভাগে “সহকারী অধ্যাপক” ও “প্রভাষক” এর পদসৃজন এর বিষয়টি উল্লেখ করা হয়।

এ বিষয়ে ঢাকা ডেন্টাল কলেজ এর অধ্যক্ষ ও বাংলাদেশ ডেন্টাল সোসাইটির মহাসচিব জনাব হুমায়ূন কবীর বুলবুল ডেন্টাল টাইমসকে জানান – “বাংলাদেশ ডেন্টাল সোসাইটির অংগীকার ও প্রতিশ্রুতি ছিল ডেন্টাল পাবলিক হেলথ বিষয়টিকে নিপসমে ডিপার্টমেন্ট হিসাবে প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে জাতীয় গবেষণায় অন্তর্ভূক্ত করা৷ এরই অংশ হিসেবে আমরা নিপসম এর সম্মানিত পরিচালক অধ্যাপক (ডাঃ) বায়েজীদ খুরশীদ রিয়াজের সঙ্গে বিষয়টি আলোচনা করে কোর্স কারিকুলামের প্রস্তাবনাও প্রদান করি৷ দীর্ঘ পথ পরিক্রমায় অবশেষে স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তর ও বিভাগ (স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়), জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় ও অর্থ মন্ত্রণালয় এর সম্মতিতে জনস্বাস্থ্য ডেন্টিস্ট্রির পদসৃজন হয়েছে।

আমি মনে করি আমাদের ডেন্টাল সার্জনদের জন্যে বিষয়টি অত্যন্ত আনন্দের এবং গর্বের। আপাতত ডেন্টাল পাবলিক হেলথ ডিপার্টমেন্ট চালু হলেও ভবিষ্যতে প্রস্তাবিত নিপসম বিশ্ববিদ্যালয় বাস্তবায়িত হলে ডেন্টাল পাবলিক হেলথ একটি অনুষদ হিসাবে প্রতিষ্ঠা পাবে বলে পরিচালক মহোদয় আমাদের আশাবাদ প্রদান করেছেনএবং তাতে খুলে যাবে ডেন্টাল প্রফেশনে নতুন সম্ভাবনার দুয়ার৷ “

উল্লেখ্য, নিপসমে বর্তমানে ৯ টি বিষয়ে মাস্টার্স ইন পাবলিক হেলথ কোর্সটি চলমান রয়েছে৷ যেগুলো হলো –
১) Health Service Management & Policy
২) Hospital Management
৩) Community Medicine
৪) Epidemiology
৫) Reproductive & Child Health
৬) Health Promotion & Health Education
৭) Reproductive & Child Health
৮) Occupational & Environmental health.
৯) Non-Communicable Disease

এছাড়াও অধ্যাপক ডাঃ হুমায়ূন কবীর বুলবুল ডেন্টাল টাইমসকে জানান, ঢাকা ডেন্টাল কলেজ সহ সরকারী মেডিকেল কলেজ ডেন্টাল ইউনিটসমূহেও ইতিপূর্বে আমরা ডেন্টাল পাবলিক হেলথ বিভাগের পদসৃজন করেছি।

Continue Reading

জাতীয়

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে ১৭ নথি গায়েব, শাহবাগ থানায় জিডি

Published

on

স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য শিক্ষা বিভাগ থেকে ১৭ টি নথি খোয়া গেছে। গত বৃহস্পতিবার রাজধানীর শাহবাগ থানায় এ নিয়ে একটি সাধারণ ডায়েরি করেছে মন্ত্রণালয়।

শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মওদুত হাওলাদার গণমাধ্যমকে তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য শিক্ষা বিভাগ থেকে ১৭ টি নথি খোয়া গেছে। গত বৃহস্পতিবার রাজধানীর শাহবাগ থানায় এ নিয়ে একটি সাধারণ ডায়েরি করেছে মন্ত্রণালয়।

শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মওদুত হাওলাদার প্রথম আলোকে তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

আজ শনিবার মওদুত হাওলাদার বলেন, ‌’ফাইল হারিয়ে যাওয়া নিয়ে বৃহস্পতিবার একটি জিডি হয়েছে। আজ সচিবালয় বন্ধ। আগামীকাল থেকে তদন্ত শুরু হবে।’

তবে একাধিক সূত্র প্রথম আলোকে নিশ্চিত করেছে, ফাইল খোয়া যাওয়ার ঘটনায় বৃহস্পতিবারই পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি)র বিশেষ সুপার মো কামরুজ্জামানের নেতৃত্বে ‌ক্রাইম সিন ইউনিট সচিবালয়ে যান। সিআইডির কর্মকর্তারা সংশ্লিষ্ট বিভাগের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের সঙ্গে কথা বলেন। জিডি করার ৪৮ ঘণ্টা পরও ফাইলগুলো কে সরাল সে সম্পর্কে নিশ্চিত হতে পারেনি মন্ত্রণালয় বা পুলিশ কোনো পক্ষই।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বাংলাদেশ সচিবালয়ের স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব (উন্নয়ন) শাহাদৎ হোসাইনের কক্ষের লাগোয়া ঘর থেকে নথিগুলো হারিয়ে যায়। শাহাদৎ হোসাইন সচিবালয়ের ৩ নম্বর ভবনের ২৯ নম্বর কক্ষে বসেন। পাশের লাগোয়া ঘরটিতে বসেন ক্রয় ও সংগ্রহ শাখা-২ এর সাঁট মুদ্রাক্ষরিক ও কম্পিউটার অপারেটর মো. জোসেফ সরদার এবং আয়েশা সিদ্দিকা । ফাইলগুলো এই দুই কর্মীর কেবিনেটে ছিল।

মন্ত্রণালয় যে জিডি করেছে তাতে বলা হয়েছে, গত ২৭ অক্টোবর বুধবার অফিস করে নথিগুলো ফাইল কেবিনেটে রাখা হয়। পরদিন দুপুর ১২ টায় কাজ করতে গিয়ে দেখা যায় ফাইলগুলো কেবিনেটের মধ্যে নেই।

যে নথিগুলো খোয়া গেছে সেগুলোর সিংহভাগই স্বাস্থ্য শিক্ষা বিভাগের অধীন বিভিন্ন মেডিকেল কলেজ ও বিভাগের কেনাকাটা সম্পর্কিত।

জিডিতে ১৭ টি নথির নম্বর ও বিষয় উল্লেখ করা হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে, শহীদ তাজউদ্দীন আহমেদ, রাজশাহী মেডিকেল কলেজসহ অন্যান্য মেডিকেল কলেজের কেনাকাটা সংক্রান্ত একাধিক নথি, ইলেকট্রনিক ডেটা ট্র্যাকিংসহ জনসংখ্যাভিত্তিক জরায়ু মুখ ও স্তন ক্যানসার স্ক্রিনিং কর্মসূচি, রিপোর্ট অধিদপ্তরের কেনাকাটা, ট্রেনিং স্কুলের যানবাহন বরাদ্দ ও ক্রয় সংক্রান্ত নথি।

এর বাইরেও নার্সিং ও মিডওয়াইফারি অধিদপ্তর, স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তরের একাদিক প্রকল্পের নথি খোয়া গেছে।

এ বিষয়ে জানতে অতিরিক্ত সচিব শাহাদৎ হোসেনের সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, এই মুহূর্তে এ ব্যাপারে তিনি কিছু বলতে পারছেন না।

Continue Reading

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের ছয় কর্মকর্তাকে বদলি

Published

on

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্র্র্ণালয়ের দাপ্তরিক কাজের সুবিধার্থে ছয় কর্মকর্তাকে মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন বিভাগে বদলি ও পদায়ন করা হয়েছে।

সোমবার (১৭ মে) মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের প্রশাসন-১ অধিশাখার উপসচিব সারমিন আক্তার জাহান স্বাক্ষরিত এক অফিস আদেশে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়েছে, ‘স্বাস্থ্য সেবা বিভাগ, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের নিম্নবর্ণিত কর্মকর্তাদেরকে দাপ্তরিক কাজের সুবিধার্থে তাদের নামের পার্শ্বে বর্ণিতভাবে বদলি বা পদায়ন করা হলো।’

নির্দেশনা অনুযায়ী, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের নার্সিং সেবা-১ শাখার মো. মেজবাউল হোসেন ও নার্সিং সেবা-২ অধিশাখার উপসচিব মিনা মাসুদ উজ্জামানকে যথাক্রমে নার্সিং সেবা-২ শাখা এবং প্রবা-১ অধিশাখায় বদলি করা হয়েছে।

মন্ত্রণালয়ের জনস্বাস্থ্য-১ অধিশাখার উপসচিব ডা. মো. শিব্বির আহমেদ ওসমানীকে জনস্বাস্থ্য-২ অধিশাখায় এবং জনস্বাস্থ্য-২ অধিশাখা উপসচিব মোহাম্মদ মাসুদুর রহমান মোল্লাকে জনস্বাস্থ্য-১ অধিশাখায় বদলি করা হয়েছে।

এছাড়া মন্ত্রণালয়ের সংযুক্ত হাসপাতাল অনবিভাগের উপসচিব বেগম আছিয়া খাতুন ও মো. আলমগীর কবিরকে যথাক্রমে স্বাস্থ্য-১ শাখা এবং আইন-১ ও ২ শাখায় বদলি করা হয়েছে।

যথাযথ কর্তৃপক্ষের অনুমোদনক্রমে এ আদেশ জারি করা হয়েছে বলেও প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়েছে। 

Continue Reading

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়

২৭ জুনিয়র কনসালটেন্টকে (ডেন্টিস্ট্রি) বদলি করে প্রজ্ঞাপন

Published

on

বিসিএস স্বাস্থ্য ক্যাডার ও স্বাস্থ্য সার্ভিসে কর্মরত ২৭ জুনিয়র কনসালটেন্টকে (ডেন্টিস্ট্রি) বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে বদলি করে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়।

বৃহস্পতিবার (১৪ জানুয়ারি) মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের পারসোনেল-৩ অধিশাখার উপসচিব মো. আবু রায়হান মিঞা স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়, পুনরাদেশ না দেয়া পর্যন্ত বিসিএস স্বাস্থ্য ক্যাডার ও স্বাস্থ্য সার্ভিসের বর্ণিত কর্মকর্তাগণকে তাঁদের নামের পাশে বর্ণিত পদ ও কর্মস্থলে বদলি বা পদায়ন করা হলো।

জুনিয়র কনসালটেন্ট পদমর্যাদার এসব ডেন্টাল চিকিৎসকদের একই পদে দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে পদায়ন করা হয়েছে।

এতে আরও বলা হয়, আগামী ১৯ জানুয়ারির মধ্যে বদলি হওয়া কর্মকর্তাদের পদায়নকৃত কর্মস্থলে যোগদান করতে হবে। অন্যথায় ২০ জানুয়ারি পূর্বাহ্নে বর্তমান কর্মস্থল থেকে তাৎক্ষণিক অবমুক্ত হয়েছেন বলে গণ্য হবেন। অবমুক্তির সময় তিনি বর্তমান কর্মস্থল থেকে ছাড়পত্র গ্রহন করবেন এবং এইচআরএম ডাটাবেজ থেকে মুভ আউট হবেন এবং যোগদানের পর দায়িত্বপ্রাপ্ত বিভাগ বা কর্মস্থলে মুভ ইন হবেন।

এছাড়া লিয়েন, প্রেষণ ও শিক্ষা ছুটি ভোগরত চিকিৎসকগণ ছুটি শেষে পদায়নকৃত কর্মস্থলে যোগদান করবেন। একইসঙ্গে মাতৃত্বকালীন ছুটি ভোগরত চিকিৎসকগণ ছুটি শেষে পদায়নকৃত কর্মস্থলে যোগদান করবেন বলেও আদেশে উল্লেখ করা হয়েছে।

রাষ্ট্রপতির আদেশে যথাযথ কর্তৃপক্ষের আদেশে জনস্বার্থে জারি করা আদেশের অনুলিপি স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক, পরিচালক (প্রশাসন ও এমআইএস), অধ্যক্ষ, পরিচালক, লাইন ডাইরেক্টর, বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালকসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে পাঠানো হয়েছে।

Continue Reading

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়

কোনো পোশাক কারখানায় আক্রান্ত বেশি হলে সেটি কিছুদিন বন্ধ থাকবে

Published

on

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, কোনো তৈরি পোশাক কারখানায় করোনাভাইরাসে বেশি মানুষ আক্রান্ত হলে সেই কারখানা কিছুদিনের জন্য বন্ধ করে দেওয়া হবে। এ ছাড়া ঢাকা, গাজীপুর ও নারায়ণগঞ্জে যেসব শ্রমিক এসে গেছেন, তাঁদের ‘লকডাউন’ সময়ে অবশ্যই এসব এলাকায় থাকতে হবে। কেউ যদি কোনো কারণে চলেও যান, তাহলে তাঁকে এলাকায় গিয়ে কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

করোনা পরিস্থিতিতে শিল্প ও ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান সীমিত আকারে চালু রাখার বিষয়ে আজ রোববার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে অনুষ্ঠিত এক সভা শেষে সংবাদ ব্রিফিংয়ে এসব কথা বলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী। সভায় বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের সচিব, পুলিশের আইজি, তৈরি পোশাকশিল্প মালিকদের নেতা ও একাধিক চিকিৎসক নেতা উপস্থিত ছিলেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, আলোচনার মূল বিষয় ছিল গার্মেন্টসগুলো কীভাবে স্বাস্থ্যবিধি পালন করে চলবে। তারা যেন পোশাক কারখানা য় চালাতে নিয়মনীতি মেনে চলে। শ্রমিকেরা যেন সেবা পান। ন্যূনতম দূরত্ব বজায় রেখে যেন কাজের ব্যবস্থা করা হয়। পাশাপাশি কোয়ারেন্টিনের ব্যবস্থা চালু রাখারও পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া নমুনা পরীক্ষার সুযোগ বাড়ানোর বিষয়েও বলা হয়েছে।

জাহিদ মালেক বলেন, শ্রমিকদের আনা-নেওয়া ও থাকা-খাওয়ার ব্যবস্থার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। কারণ, সংক্রমণ বেড়ে গেলে জায়গা দেওয়া যাবে না।

অন্যান্য

Continue Reading
ক্যারিয়ার10 mins ago

জনস্বাস্থ্য ডেন্টিস্ট্রি বিভাগে পদসৃজন -(নিপসম)

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়3 days ago

অ্যান্টিবায়োটিকের মোড়ক হবে লাল, যথেচ্ছ ব্যবহার রোধে হচ্ছে আইন

জাতীয়5 days ago

দাউদকান্দিতে অবৈধ হাসপাতাল-ক্লিনিকের রমরমা বাণিজ্য

জাতীয়2 weeks ago

৭ ছাত্র নিরুদ্দেশ: চিকিৎসক শাকিরের সহযোগী ভিলার স্বীকারোক্তি

সিলেট বিভাগ2 weeks ago

চিকিৎসককে ছুরিকাঘাতের হুমকি দিয়ে ডেন্টাল চেম্বারে ছাত্রলীগ নেতার চাঁদাবাজি!

সংগঠন3 weeks ago

ডা: মোত্তাকিন আহমেদ স্মরণে বিএসপিডি’র দোয়া মাহফিল

সংগঠন3 weeks ago

চিকিৎসকদের জন্য লিডারশীপ এক্সেলেন্সি শীর্ষক কর্মশালা অনুষ্ঠিত

কলাম3 weeks ago

স্বাস্থ্য খাতে সরকারি-বেসরকারি অংশীদারত্ব

জাতীয়3 weeks ago

সংস্থা বলছে জঙ্গি – পরিবারের দাবি ডাঃ শাকির নির্দোষ

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর3 weeks ago

দেশে রেকর্ড সংখ্যক ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত

জাতীয়3 weeks ago

প্রধানমন্ত্রীর উন্নয়ন কার্যক্রম কেউ ঠেকাতে পারবে না – স্বাস্থ্যমন্ত্রী

জাতীয়3 weeks ago

বিএসএমএমইউ সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতাল উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

জাতীয়3 weeks ago

ডেন্টাল সার্জন অবসরে, কর্তৃপক্ষের সম্মতিতে চিকিৎসা দিচ্ছে টেকনিশিয়ান

জাতীয়3 weeks ago

সিআইডি পরিচয়ে ‘চিকিৎসক’ তুলে নেওয়ার অভিযোগ

জাতীয়1 month ago

ওষুধের দাম বাড়ায় বিপাকে সাধারণ মানুষ

পরামর্শ1 month ago

দাঁতের চিকিৎসার সময় যে তথ্যগুলো গোপন করবেন না!

জাতীয়1 month ago

হাসপাতালের ল্যাবে ইলিশ মাছ, সিলগালা করে দিলেন ম্যাজিস্ট্রেট

পড়ালেখা1 month ago

বাইরের শিক্ষার্থীদের নিয়মিত মাস্টার্সে সুযোগ দেওয়ার কথা ভাবছে ঢাবি

শিক্ষাঙ্গন1 month ago

রংপুর মেডিকেলের ‘অসুখ’ সারবে কে?

জাতীয়1 month ago

কখনোই নিবন্ধন করেনি দেশের ১৪ শতাংশ হাসপাতাল: আইসিডিডিআর’বি

Advertisement

সম-সাময়িক

Subscribe for notification