Connect with us

সংগঠন

এপিডিসি’র ৩৯তম আসরে যোগদান করেছে বাংলাদেশ ডেন্টাল সোসাইটি

DENTALTIMESBD.com

Published

on

DentalTimes

Asia Pacific Dental Congress (APDC) -এর ৩৯ তম আসরে যোগদান করেছেন বাংলাদেশ ডেন্টাল সোসাইটির কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি অধ্যাপক ডা. মো. আবুল কাশেম এবং মহাসচিব ডা. হুমায়ন কবীর বুলবুল।

বাংলাদেশ ডেন্টাল সোসাইটির মহাসচিব ডা. হুমায়ন কবীর বুলবুল বলেন, দফায় দফায় ডেলিগেট মিটিং, কাউন্সিল মিটিং, ICCDE কনভোকেশন, FDI president DR. PATRICK HESCOT, এশিয়া-প্যাসিফিক অঞ্চলের নেতৃবৃন্দের সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করে বাংলাদেশের শুভেচ্ছা পৌছে দিয়ে বাংলাদেশের ডেন্টিস্ট্রির উন্নয়নের (পরিবর্তনের) চিত্র তুলে ধরার চেষ্টা করেছি।

তিনি আরও বলেন, বিশেষ করে APDF president Madam CRISTINA ANTONIO, APDF secretary general DR. OLIVER HENEDIGE-এর সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করে বাংলাদেশের পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা জ্ঞাপনের পাশাপাশি নানাবিধ কার্যকর কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করে বিগত FDI- 2015 & 2016 এবং APDC- 2016 এর ধারাবাহিকতায় আন্তর্জাতিক আসরে বাংলাদেশের ডেন্টিস্ট্রির একটি গৌরবোজ্জ্বল ভাবমূর্তি গড়াই এবারের অংশগ্রহনে বাংলাদেশ ডেন্টাল সোসাইটির মূল লক্ষ্য।

Continue Reading
Click to comment

সংগঠন

মসজিদে এসি বিস্ফোরণেরঘটনায় রক্ত প্রয়োজন

নিজস্ব প্রতিনিধি

Published

on

DentalTimes

নারায়নগঞ্জে একটি মসজিদে এসি বিস্ফোরণের ঘটনায়, অনেকেই অগ্নিদগ্ধ এবং আহত হয়েছেন । আহতদেরকে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ণ ও প্লাস্টিক সার্জারি ইন্সটিটিউটে চিকিৎসার জন্যে আনা হয়েছে। চিকিৎসাকার্যে এখন প্রচুর পরিমাণে রক্তের প্রয়োজন।

গত ৪ সেপ্টেম্বর মেডিসিন ক্লাবের কেন্দ্রীয় পরিষদের এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এমনটাই জানিয়েছে। সভাপতি মোঃ আরমান হোসেন এবং সাধারণ সম্পাদক বাসারাত কাউছার ফাহিম স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে আরো জানানো হয়,

আজ ০৫ সেপ্টেম্বর সকাল ৮টা থেকে, রক্তদাতাদের জন্যে অপেক্ষা করবে তারা। সাধারণ মানুষের সাড়া ব্যতীত কিছুই করা সম্ভব নয় ।আমরা চাই কাল সকাল থেকে রক্তদাতাদের ঢল আসুক,রক্তের জন্যে যেন আহত কেউ পীড়িত না হন।

রক্তদানের স্থানঃ শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ণ ও প্লাস্টিক সার্জারি ইন্সটিটিউট, ঢাকা।

যেকোনো প্রয়োজনে নির্ধারিত মোবাইল নম্বরে যোগাযোগ করার অনুরোধ করাহয়েছে।।

01713260032
01521332988
01701060894
01778132540
01833326593
01928202292

Continue Reading

সংগঠন

উত্তরের বন্যা এবং নদীভাঙ্গা মানুষদের পাশে উচ্ছ্বাস

নিজস্ব প্রতিনিধি

Published

on

DentalTimes

দেশের ডেন্টাল ডাক্তার এবং শিক্ষার্থীদের দ্বারা পরিচালিত অন্যতম সাংস্কৃতিক ও মানবিক সংগঠন “উচ্ছ্বাস” বন্যার্তদের সহায়তায় “আমাদের উচ্ছ্বাস”- নামক কর্মসূচির আয়োজন করে।
উত্তরের ব্যাপক বন্যা ও নদী ভাঙন কবলিত জেলা লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলার মহিষখোচা ইউনিয়নের কূটির পার নামক গ্রামে এ কর্মসূচিটি পালিত হয়।

ত্রান বিতরণ কর্মসূচিটি মহিষখোচা বালাপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বেলা ১১ ঘটিকা থেকে অনুষ্ঠিত হয়।আদিতমারী উপজেলা প্রশাসন এবং মহিষখোচা ইউনিয়ন পরিষদ উক্ত কর্মসূচীতে সহায়তা করে।

উচ্ছ্বাসের পক্ষ থেকে ৬০ টি পরিবারকে সহায়তা প্রদান করা হয়।যার মধ্যে ছিল প্রয়োজনীয় বাজার,ওষুধ এবং পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট।

এ আয়োজনে উপস্থিত এবং সার্বিক তদারকিতে ছিলেন উচ্ছাসের আহবায়ক নাহিদ ইসলাম এবং যুগ্ম আহবায়ক শাহরিয়ার রহমান।এছাড়াও উচ্ছ্বাস প্রতিনিধি দল উপস্থিত ছিলেন।

Continue Reading

সংগঠন

সব চিকিৎসককে সরকারি প্রণোদনার আওতায় আনার দাবি

Avatar

Published

on

DentalTimes

বর্তমান পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্যসেবা প্রদানকারী সব চিকিৎসককে সরকারি প্রণোদনার আওতায় আনার জোর দাবি জানিয়েছে বিএনপিপন্থী চিকিৎসকদের সংগঠন ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ড্যাব)।

শুক্রবার (৫ জুন) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে এ দাবি জনানো হয়।

বিবৃতিতে বলা হয়, গত ২৩ এপ্রিল অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থ বিভাগের বাজেট অনুবিভাগ-১ অধিশাখা-৪ কর্তৃক একটি পরিপত্র জারি করা হয়েছে, যাতে উল্লেখ করা হয়েছে যে, সব চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মী করোনা আক্রান্ত রোগীদের সরাসরি সেবা প্রদান করবেন।এসময় কেউ করোনা পজেটিভ হলে সরকারি বিধি মোতাবেক গ্রেড অনুযায়ী সরকার ঘোষিত প্রণোদনা প্রাপ্ত হবেন। কিন্তু সরকারের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ ইতিমধ্যে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে দেশের সব সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে কোভিড নন কোভিড সব রোগীর চিকিৎসা দিতে হবে। এমতাবস্থা সরকারি ও বেসরকারি সব চিকিৎসক বর্তমানে সমান ঝুঁকিতে রয়েছেন।

ড্যাব বর্তমান পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্যসেবা প্রদানকারী সব চিকিৎসককে সরকারি প্রণোদনার আওতায় আনার জোর দাবি জানিয়েছেন।

সংগঠনটির সভাপতি অধ্যাপক ডা. হারুন আল রশিদ ও মহাসচিব ডা. মো. আব্দুস সালাম যৌথ বিবৃতিতে এ দাবি জানান।

তারা বলেন, বিশ্বের অন্য যেকোন দেশের তুলনায় বাংলাদেশের পরীক্ষা অনেক কম হওয়ায় প্রকৃত করোনা রোগী শনাক্ত  হচ্ছে না বিধায় সব চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মী প্রবল স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে রয়েছেন। কোন রোগী করোনা পজেটিভ, কে পজেটিভ নন বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে তা অনুধাবন করা সহজ নয়। ইতিমধ্যেই বিএসএমএমইউ, ঢাকা মেডিকেল কলেজ, স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ ও শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজসহ বিভিন্ন হাসপাতালের বহির্বিভাগ, অন্তঃবিভাগ, অপারেশন থিয়েটার, আইসিইউ এবং ফিভার ক্লিনিকসমূহে দায়িত্ব পালনকারী ১৮ চিকিৎসক মারা গেছেন।১৬০০ চিকিৎসকসহ দুই হাজারের বেশি স্বাস্থ্যকর্মী করোনায় আক্রান্ত, ক্রামাগতভাবে যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। করোনা ডেটিকেটেড হাসপাতালের বাইরে কর্মরত চিকিৎসক ও স্বাস্থ্য কর্মীরাই বেশি সংখ্যক আক্রান্ত হয়েছে। সুতরাং এদের প্রণোদনার বাইরে রাখা অনৈতিক, অন্যায়, নীতিবহির্ভূত।

তারা বলেন, এত বেশিসংখ্যক চিকিৎসক করোনায় আক্রান্ত হওয়া সত্ত্বেও সরকার অধ্যাবধি চিকিৎসকদের সুচিকিৎসায় কোনো হাসপাতাল নির্ধারণ করেনি যা দুর্ভাগ্যজনক।

আমাদের স্বাস্থ্য কাঠামোতে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালনাকরী বেসরকারি চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের প্রণোদনার বাইরে রাখা হয়েছে যা স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনায় বিরাট বিভাজন, বিশৃংখলা সৃষ্টি করবে ও নিকট ভবিষ্যতে স্বাস্থ্য ব্যবস্থার মুখ থুবড়ে পড়বে।

এমতাবস্থায় সরকার জারিকৃত পরিপত্রটি অনতিবিলম্বে প্রত্যাহার পূর্বক দেশের সব চিকিৎসক ও স্বাস্থ্য কর্মীদের প্রণোদনার আওতায় আনতে জোর দাবি জানান এবং করোনায় আক্রান্ত চিকিৎসকদের আলাদা হাসপাতাল নির্দিষ্টকরণের আহ্বান জানান।

Continue Reading

জনপ্রিয়