Connect with us

Uncategorized

চুড়ান্ত অনুমোদন কমিটির ৬২ জনের মধ্যে মাত্র ০৩ জন দন্তচিকিৎসা পেশার- ডাঃ সালাহউদ্দিন আল আজাদ [বিশ্লেষণ]

DENTALTIMESBD.com

Published

on

DentalTimes DentalTimes

সামাজিক মাধ্যমে তুফান ওঠা একটি কারিকুলাম সংক্রান্ত পোস্ট নিয়ে আমার ক্ষুদ্র একটি বিশ্লেষণ। কারিকুলাম এবং মেডিকেল এডুকেশন এ স্নাতকোত্তর গ্রাজুয়েট হিসাবে আমার দায়িত্ব মনে করে এই লেখা। কোন ভুল হইলে ধরিয়ে দেওয়ার আশা করছি। অনেক প্রশ্নের উত্তর পাওয়া যাবে এখানে।

  • তত্ত্ব – ০১:
    কারিকুলাম ও সিলেবাস কথাটির মধ্যে যোজন যোজন ফারাক। যারা এ সম্পর্কিত বিদ্যা অর্জন করেছেন, তারা জানেন। আর যারা জানেন না তারা জেনে নিন ওয়েবসাইট কিংবা এ সম্পর্কিত বিজ্ঞানের কাছ থেকে। কারিকুলাম স্থায়ী কিছু নয়, এটি চলমান প্রক্রিয়া।
  • তত্ত্ব -০২: 
    একটি কারিকুলাম পরিবর্তন এর জন্য ন্যুনতম সময় ৫ বছর, তবে পরিবর্তন-পরিবিরধন- সংশোধন যেকোন সময়ে হতে পারে ; বিষয়ভিত্তিক বিশেষজ্ঞ বৃন্দের সুপারিশ এর ভিত্তিতে। এটি আমার ব্যক্তিগত মতামত নয়, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান মন্ত্রনালয় অধিভুক্ত স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এর চিকিৎসা শিক্ষা বিভাগের আইন।
  • ডেন্টিস্ট্রি সম্পর্কিত বিশ্লেষণ :

ইতিহাস ও শ্রুতিকথা অনুযায়ী ১৯৬১ সালে অধ্যাপক ডাঃ আবু হায়দার সাজ্জাদুর রহমান ( মাস্তানা) স্যার এর শুরু করা পেশা হাঁটি হাঁটি পা পা করে আজ ৫৬ বছর পার করছে। সময়ের প্রয়োজনে ও যুগের চাহিদা অনুযায়ী বিশ্বায়ন এর উপযোগী করতে বিষয় ও মুল্যায়ন পদ্ধতিগত অনেক পরিবর্তন এসেছে। সেই ধারাবাহিতা ও অনেক মানুষ এর চেস্টার ফল হিসাবে সর্বশেষ সংস্করণ বর্তমান ৫ বছর মেয়াদি কারিকুলাম।

এই কারিকুলাম তৈরীতে কখনো কাজ করেছেন –

অধ্যাপক ডাঃ ইমাদুল হক, অধ্যাপক ডাঃ আজিজা বেগম, অধ্যাপক ডাঃ আশরাফ হোসেন, অধ্যাপক ডাঃ আনোয়ারুল আলম, অধ্যাপক ডাঃ কাজী মেহেদী উল আলম, অধ্যাপক ডাঃ কাজী আব্দুল খালেক, অধ্যাপক ডাঃ মতিউর রহমান মোল্লা, অধ্যাপক ডাঃ মহিউদ্দীন আহমেদ, অধ্যাপক ডাঃ আবুল কাশেম, অধ্যাপক ডাঃ আলিয়া সুলতানা, অধ্যাপক ডাঃ মমতাজ বেগম, ডাঃ সুলতানা গুলনাহার ও আরো অনেকে।

দ্বিতীয় ধাপে কখনো কাজ করেছেন—

অধ্যাপক ডাঃ আলী আসগর মোড়ল, অধ্যাপক ডাঃ শামসুল আলম, অধ্যাপক ডাঃ আখতার কামাল, অধ্যাপক ডাঃ আবুল কালাম জোয়ারদার, অধ্যাপক ডাঃ ওসমান গনি, অধ্যাপক ডাঃ জাকির হোসেন, অধ্যাপক ডাঃ বেপারী আবুল কালাম আজাদ, ডাঃ মাহবুবুর রহমান, অধ্যাপক ডাঃ আসাদুজ্জামান মিশা, অধ্যাপক ডাঃ মোরশেদ আলম তালুকদার, অধ্যাপক ডাঃ মোঃ ফারুক, অধ্যপক ডাঃ রমজান আলী, অধ্যাপক ডাঃ খুরশীদুজ্জামান, অধ্যাপক ডাঃ জালালউদ্দীন,ডাঃ আবুল কালাম আজাদ, ডাঃ এস এম আক্কাস আলী, ডাঃ জাহিদুর রহমান, ডাঃ জয়নাল আবদীন, ডাঃ উম্মে সালমা আব্দুল্লাহ, ডাঃ আ ফ ম সারোয়ার, ডাঃ সেজুতি হক, ডাঃ আনোয়ারা, ডাঃ তামান্না সুলতানা এবং আরো অনেকে।

বিষয়ভিত্তিক বিশেষজ্ঞ বাদে সবসময় সমন্বয়ক এর দায়ীত্ব পালন করেছেন তৎকালীন ডেন্টাল সোসাইটি এর প্রতিনিধিগন–  অধ্যাপক ডাঃ আলী আসগর মোড়ল, অধ্যাপক ডাঃ আশরাফ হোসেন,অধ্যাপক ডাঃ আবুল কাশেম, অধ্যাপক ডাঃ নিয়াজ আহমেদ চৌধুরী, ডাঃ সালাহউদ্দীন আহমেদ , ডাঃ হুমায়ুন কবীর বুলবুল।

এখন প্রশ্ন হচ্ছে দায়ী কে?
1. Subject Experts or Bangladesh Dental Society? 
2. BMDC
3. No one.

বিচারের দায়িত্ব আপনাদের।

তবে মনে রাখতে হবে বিষয়টি এত সহজ সরল নয়। আপনারা জেনে থাকবেন – ৬২ জন সদস্য নিয়ে বিএমডিসি এর চুড়ান্ত অনুমোদন কমিটি যার মধ্যে মাত্র ০৩ জন দন্তচিকিৎসা পেশার। সাধারণ অংক হিসাব করে নিন এখন।

  • তাহলে মুল সমস্যাদি কোথায়?
    আমাদের মানসিকতা ও জ্ঞানের অভাব এবং যেকোন বিষয় রাজনৈতিক রঙ দেওয়া, যা এমবিবিএস ফ্যাকাল্টি দের মধ্যে নাই। ক্ষমতায়ন এবং একতার অভাব।
  • সমাধান : ( সম্ভাব্য)

তাড়াহুড়া করে শুধু ৫ বছর মেয়াদি করার জন্য হয়ত (একান্ত ব্যক্তিগত মতামত) বিষয় বন্টন ও ফেজ সিপারেশন ত্রুটিপূর্ণ (?) – ফেসবুকে লেখা ডেন্টাল সার্জন দের বিশ্লেষণ অনুযায়ী।

তাই অযথা দোষাররোপ বাদ দিয়ে আসুন যারা পেশার উন্নয়নকল্পে কাজ করতে চান একসাথে বসে পুনরমুল্যায়ন করে সংশোধিত এবং সর্বজনগৃহীত একটি স্মার্ট কারিকুলাম প্রণয়নের পথে এগোই। এখানে দলমত,উপদল,বিষয় নির্বিশেষে সকলে খোলা মন নিয়ে অংশগ্রহণ করাটা সমীচিন। অবশ্য প্রয়োজনীয় হিসাবে বাংলাদেশ ডেন্টাল সোসাইটি ও সকল বিষয়য়ভিত্তিক বিশেষজ্ঞবৃন্দের নেক নজর আশা করছি।

……………… লেখক ……………………

DentalTimes

ডাঃ সালাহউদ্দীন আল আজাদ( সোহাগ)
সহযোগী অধ্যাপক, মেডিকেল এডুকেশন
অধ্যক্ষ, মেন্ডি ডেন্টাল কলেজ ও হাসপাতাল, 

প্রাক্তন সদস্য, কারিকুলাম প্রণয়ন সংক্রান্ত উপকমিটি, সেন্টার ফর মেডিকেল এডুকেশন,
মহাখালী, ঢাকা ( ২০১১-১৩, ২০১৪-১৫)।

Continue Reading

Uncategorized

যশোর : ২২ চিকিৎসক-নার্সসহ ২৮ জন কোয়ারেন্টাইনে

DENTALTIMESBD.com

Published

on

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত দুই রোগীর সংস্পর্শে আসায় যশোর জেনারেল হাসপাতালের ১১ চিকিৎসক, ১১ নার্স মোট ২৮ জন স্বাস্থ্যকর্মীকে কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। বুধবার হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়কের জারি করা অফিস আদেশে এই কথা জানানো হয়।

বৃহস্পতিবার (৩০ এপ্রিল) হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. দিলীপ কুমার রায় এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো এসব ডাক্তার ও নার্স করোনাভাইরাস শনাক্ত হওয়া রোগীদের কনটাক্টে এসেছিলেন। হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. আরিফ আহমেদের সঙ্গে যোগাযোগ করে পর্যায়ক্রমে এই হাসপাতালের সবার নমুনা পরীক্ষা করতে বলা হয়েছে।

ডা. দিলীপ কুমার রায় বলেন, করোনা আক্রান্ত দুই রোগীর সংস্পর্শে যেসব ডাক্তার, নার্স ও কর্মচারী এসেছিলেন তাদের শনাক্ত করে কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। ১১ জন ডাক্তার ও ১১ জন নার্স ছাড়াও পরিচ্ছন্নতাকর্মী, ওয়ার্ড বয় ও আয়া মিলিয়ে মোট ২৮ জনকে কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। কোয়ারেন্টাইনের মেয়াদ হবে ১৪ দিন। এই সময়কালে তাদের সব ধরনের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। এমন পরিস্থিতিতে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ প্রাথমিক পদক্ষেপ হিসেবে করোনারি কেয়ার ইউনিট ও মেডিসিন ওয়ার্ড লকডাউন করে দেন। গুরুত্বপূর্ণ ইউনিট দুটি জীবাণুমুক্ত করার পদক্ষেপও নেওয়া হয়। ওই দুই স্থানে চিকিৎসাধীন রোগীদের স্থানান্তর করা হয় অন্য ওয়ার্ডে।

গত কয়েকদিনে শনাক্ত হওয়া করোনা পজেটিভদের বেশ কয়েকজনকে যশোর টিবি হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। যারা ওই হাসপাতালে যেতে অনাগ্রহ প্রকাশ করেছেন, তাদের নিজ নিজ বাড়িতে চিকিৎসাধীন রাখা হয়েছে।

যশোর টিবি হাসপাতালকে অস্থায়ী করোনা হাসপাতাল হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে। এখানে করোনাভাইরাস আক্রান্তদের সেবার কাজে নিয়োজিতরা পাশেই নাজির শঙ্করপুরে অবস্থিত শেখ হাসিনা সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্কের ডরমেটরিতে অবস্থান করছেন।

Continue Reading

Uncategorized

যে চারটি বেসরকারি হাসপাতালে হবে করোনাভাইরাস পরীক্ষা

DENTALTIMESBD.com

Published

on

বেসরকারি হাসপাতালে হবে করোনাভাইরাস পরীক্ষা

দেশে কোভিড-১৯ এর প্রকোপ বাড়তে থাকায় পরীক্ষার আওতা বাড়ানোর জন্য প্রথমবারের মত চারটি বেসরকারি হাসপাতালকে করোনাভাইরাস পরীক্ষা এবং চিকিৎসার অনুমতি দিয়েছে সরকার।

এর মধ্যে ঢাকার এভারকেয়ার হাসপাতাল (সাবেক অ্যাপোলা), স্কয়ার হাসপাতাল ও ইউনাইটেড হাসপাতাল শুধু তাদের ভর্তি রোগীদের নমুনা পরীক্ষা করবে।

আর নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের ইউএস-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসাপাতাল বাইরের রোগীদের নমুনাও পরীক্ষা করতে পারবে।

বুধবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।

তিনি বলেন, “তারা যে নমুনা পরীক্ষা করবেন আমরা তা আগামীকাল থেকে অথবা যখন তারা কাজ শুরু করবেন তখন থেকে হিসাবে যুক্ত করব।”

তিনটি হাসপাতালকে বাইরের রোগীর নমুনা পরীক্ষার অনুমতি না দেওয়ার কারণ ব্যাখ্যা করে নাসিমা সুলতানা বলেন, “অনেক ক্ষেত্রে ফলোআপে সমস্যা হতে পারে, সে কারণে তাদের এখনও তাদের আউটডোর পেশেন্টের নমুনা পরীক্ষার অনুমতি দেওয়া হয়নি।”

এই চারটি বেসরকারি হাসপাতাল মিলিয়ে দেশে সব মিলিয়ে এখন ২৯টি মেডিকেল প্রতিষ্ঠানে করোনাভাইরাসের নমুনা পরীক্ষার ব্যবস্থা হল।

বুধবার সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় দেশে রেকর্ড ৬৪১ জনের মধ্যে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়ায় আক্রান্তের মোট সংখ্যা বেড়ে ৭১০৩ জন হয়েছে। এই সময়ে আরও আটজনের মৃত্যুর মধ্য দিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৬৩ জন হয়েছে।

Continue Reading

Uncategorized

২৪ ঘণ্টায় আরও ৮ জনের মৃত্যু, নতুন আক্রান্ত ৬৪১

DENTALTIMESBD.com

Published

on

অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা

দেশে মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও আটজন মারা গেছেন। এ নিয়ে ভাইরাসটিতে মোট ১৬৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হিসেবে নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন আরও ৬৪১ জন। ফলে দেশে করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা সাত হাজার ১০৩ জন।

বুধবার (২৯ এপ্রিল) দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদফতরের করোনাভাইরাস সংক্রান্ত নিয়মিত হেলথ বুলেটিনে এ তথ্য জানানো হয়। অনলাইনে বুলেটিন উপস্থাপন করেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।

তিনি জানান, করোনাভাইরাস শনাক্তে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও চার হাজার ৯৬৮টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। সব মিলিয়ে নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৫৯ হাজার ৭০১টি। নতুন যাদের নমুনা পরীক্ষা হয়েছে, তাদের মধ্যে আরও ৬৪১ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। ফলে মোট করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন সাত হাজার ১০৩ জন। আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে মারা গেছেন আরও আটজন। ফলে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৬৩ জনে। এছাড়া সুস্থ হয়েছেন আরও ১১ জন। ফলে মোট সুস্থ হয়েছেন ১৫০ জন।

যারা নতুন করে মারা গেছেন, তাদের মধ্যে ছয়জন পুরুষ এবং দুজন নারী। ছয়জন ঢাকার বাসিন্দা এবং দুজন ঢাকার বাইরের। বয়সের দিক থেকে চারজন ষাটোর্ধ্ব, দুজন পঞ্চাশোর্ধ্ব এবং দুজন ত্রিশোর্ধ্ব।

করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঝুঁকি এড়াতে সবাইকে ঘরে থাকার এবং স্বাস্থ্য অধিদফতর ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পরামর্শ-নির্দেশনা মেনে চলার অনুরোধ জানানো হয় বুলেটিনে।

প্রায় চার মাস আগে চীনের উহান থেকে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাস এখন গোটা বিশ্বে তাণ্ডব চালাচ্ছে। চীন পরিস্থিতি অনেকটাই সামাল দিয়ে উঠলেও এখন মারাত্মকভাবে ভুগছে ইউরোপ-আমেরিকা-এশিয়াসহ বিশ্বের অন্যান্য অঞ্চল। এ ভাইরাসে বিশ্বজুড়ে আক্রান্তের প্রায় সাড়ে ৩১ লাখ। মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে দুই লাখ ১৮ হাজার। তবে নয় লাখ ৬১ হাজারের বেশি রোগী ইতোমধ্যে সুস্থ হয়েছেন।

গত ৮ মার্চ বাংলাদেশে প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। এরপর প্রথম দিকে কয়েকজন করে নতুন আক্রান্ত রোগীর খবর মিললেও এখন লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে এ সংখ্যা। বাড়ছে মৃত্যুও।

প্রাণঘাতী এই ভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করেছে সরকার। নিয়েছে আরও নানা পদক্ষেপ। যদিও এরই মধ্যে সীমিত পরিসরে ঢাকাসহ বিভিন্ন এলাকার কিছু পোশাক কারখানা সীমিত পরিসরে খুলতে শুরু করেছে। তবে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা নিশ্চিত করা না গেলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে থাকবে কি-না, তা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন বিশেষজ্ঞরা।

অন্যান্য

Continue Reading

জনপ্রিয়