Connect with us

Uncategorized

মার্কারী দূষণের ফলে বছরে ৮-১৪৪ মিলিয়ন পাউন্ড অর্থ ঝুঁকিতে বাংলাদেশ

DENTALTIMESBD.com

Published

on

DentalTimes

 

ডাঃ আশরাফুজ্জামান মমিন :

বর্তমানে মার্কারী দূষণের কারণে বাংলাদেশ-সহ আরো ১৪টি দেশের জনস্বাস্থ্য  ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে যা ভবিষ্যত  আর্থিক সংকটের পূর্বাভাস। মার্কারী দূষণের ফলে বাংলাদেশ প্রতি বছর ৮ থেকে ১৪৪ মিলিয়ন পাউন্ড আর্থিক ঝুঁকির সম্মুখীন হচ্ছে। এনভায়রমেন্ট  অ্যান্ড সোশ্যাল ডেভেলপমেন্ট অর্গ্যানাইজশন-এসডোর সহযোগীতায় “দ্যা জার্নাল অফ এনভায়রনমেন্টাল ম্যানেজমেন্ট”-এ প্রকাশিত এক নতুন গবেষণা পত্রের মাধ্যমে এই তথ্যটি জনসম্মুখে তুলে ধরা হয়। ৮ জুন আইপেন ও বায়োডাইভারসিটি রিসার্চ ইন্সটিটিউট (বিআরআই) এর যৌথ  উদ্যোগে এসডো-র প্রধান কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এক প্রেস ব্রিফিং-এর মাধ্যমে গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সাবেক সচিব ও এসডোর চেয়ারপার্সন, সৈয়দ মার্গুব মোর্শেদ গবেষণাপত্রটি আনুষ্ঠানিক ভাবে প্রকাশ করেন।

গবেষণার তথ্য অনুযায়ী, বর্তমাণে ঢাকা শহর ও তার আশেপাশের এলাকার জনগণ প্রতিনিয়ত মার্কারী দূষণের শিকার হচ্ছে। এসডোর গবেষণা টিম  এই আন্তর্জাতিক গবেষণায় গুরূত্বপূণ ভূমিকা রেখেছে। তারা ঢাকা শহরের মার্কারী দূষণের ঝুঁকিপূর্ণ এলাকার বাসিন্দাদের চুলের নমুনা সংগ্রহ করে এবং পরীক্ষার জন্য পাঠায়। ঢাকা শহরের অপরিকল্পিত বর্জ্য ব্যবস্থাপনা এবং  আবাসিক এলাকার কাছাকাছি সিমেন্ট কারখানার উপস্থিতি এই শহরটিকে মার্কারী দূষণের কেন্দ্রস্থলে পরিণত করেছে। এ কারণে শহরে অবস্থিত জলাশয়সমূহ কারখানা, হাসপাতাল ও শহরের অন্যান্য বর্জ্য দ্বারা মারাত্মকভাবে দূষিত হচ্ছে। গবেষণায় দেখা গেছে, শহরের একটি নদীর নিকট দূরত্বে অবস্থিত সিমেন্ট কারখানার প্রাত্যহিক উৎপাদন ক্ষমতা ৭৪০০ মেট্রিক টন। মার্কারীর মিনামাটা কনভেনশনের স্বাক্ষরকারী দেশ হিসেবে এ সকল উৎস থেকে সৃষ্ট মার্কারী দূষণরোধে উপযুক্ত পদক্ষেপ গ্রহণ করা বাংলাদেশ সরকারের জন্য বাধ্যতামূলক।

 এসডো মহা সচিব, ড. শাহরিয়ার হোসেন বলেন, ঢাকা শহরের এই সমীক্ষার মাধ্যমে অন্যান্য শহরগুলি কি ভয়াবহ পরিমাণ দূষণের স্বীকার হচ্ছে তার একটি ক্ষুদ্র নমুনা আমরা দেখতে পাই। মার্কারী দূষণের যে চরম মূল্য আমাদের দিতে হচ্ছে, আশাকরি তা ভবিষ্যতে  এই দূষণরোধে আমাদের উপযুক্ত পদক্ষেপ গ্রহণে উদ্যোগী করবে। তিনি আরও বলেন, “ঢাকা ও অন্যান্য শহরে বসবাসকারীদের সম্ভাব্য আর্থিক ক্ষতি প্রতিরোধে মিনামাটা কনভেনশনকে অনুমোদন এবং সম্পূর্ণভাবে বাস্তবায়ন করা প্রয়োজন”।

সংগ্রহকৃত চুলের নমুনায় প্রাপ্ত মার্কারীর পরিমাণ ০.২ থেকে ২.৬৮ পিপিএম (পার্টস পার মিলিয়ন)। অর্ধেকেরও বেশী নমুনায় প্রাপ্ত মার্কারীর পরিমাণ ০.৫৮পিপিএম এর চেয়ে বেশী, যা কিনা মানবদেহে মার্কারীর সর্বোচ্চ গ্রহণযোগ্য মাত্রা হিসেবে বিবেচিত।

“মার্কারী দূষণ বিশ্বব্যাপী মানব স্বাস্থ্য ও বৈশ্বিক অর্থনীতির জন্য এক গুরুতর হুমকি। তাই বিশ্বব্যাপী মানবজাতি ও পরিবেশকে এর ক্ষতিকর প্রভাব থেকে রক্ষা করতে মার্কারী দূষণের উৎস নিরীক্ষণ করা অত্যন্ত গুরূত্বপূর্ণ” আইপেন-এর বিজ্ঞান ও কারিগরি উপদেষ্টা পিএইচডি ড. জো ডিগাঙ্গি বলেন। 

মার্কারী মানবদেহে প্রবেশ করলে এটি স্নায়ূতন্ত্র, কিডনি এবং হৃদতন্ত্রকে ক্ষতিগ্রস্ত করে।  বাড়šত শিশু বিশেষত, গর্ভস্থ ভ্রূণের স্নায়ুতন্ত্রসহ অন্যান্য  সকল অঙ্গ এই দূষণের মাধ্যমে সবচেয়ে বেশী ক্ষতিগ্র¯ত হয়। বিভিন্ন জলাশয় বর্তমানে মার্কারী দ্বারা দূষিত হচ্ছে। এসকল জলাশয়ের দূষিত মাছ  মানুষ খাদ্য হিসেবে গ্রহণ করছে এবং পরবর্তীতে মার্কারী দূষণ দ্বারা আক্রান্ত হচ্ছে। এছাড়া বিভিন্ন উৎস থেকে নির্গত মার্কারী বাষ্পও মানবদেহে মার্কারী প্রবেশের অন্যতম কারণ। 

আইপেন নেটওয়ার্কের জনস্বাস্থ্য সংস্থাগুলির প্রণিত প্রটোকল অনুযায়ী গবেষণায় অংশগ্রহণকারী দেশগুলোতে চুলের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। যা পরবর্তীতে বায়োডাইভারসিটি রিসার্চ ইন্সটিটিউট (বিআরআই)-এ পরীক্ষা করা হয়। 

আইপেন, বেসরকারী সংস্থাগুলির একটি নেটওয়ার্ক, যে সংস্থাগুলি বিশ্বের ১০০টিরো বেশী দেশে মানবস্বাস্থ্য ও পরিবেশকে  রাসায়নিক দূষণের ক্ষতিকর প্রভাব থেকে রক্ষা করার জন্য কাজ করে আসছে।

 বায়োডাইভারসিটি রিসার্চ ইন্সটিটিউট (বিআরআই) একটি অলাভজনক পরিবেশ বিষয়ক গবেষণা প্রতিষ্ঠান, যার লক্ষ্য  সহযোগীতামূলক গবেষনার মাধ্যমে বণ্যপ্রানী ও ইকোসিস্টেমের উপর ঝুকির পরিমাণ নির্ধারণ এবং বৈজ্ঞানিক গবেষণালব্ধ ফলাফলের মাধ্যমে  সকলের মাঝে পরিবেশ বিষয়ক সচেতনতা বৃদ্ধি করা এবং সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের কাছে এই সচেতনতা মূলক বার্তা পৌঁছে দেয়া।

কৃতজ্ঞতা: মেডিভয়েস

Continue Reading
Click to comment

Uncategorized

যশোর : ২২ চিকিৎসক-নার্সসহ ২৮ জন কোয়ারেন্টাইনে

DENTALTIMESBD.com

Published

on

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত দুই রোগীর সংস্পর্শে আসায় যশোর জেনারেল হাসপাতালের ১১ চিকিৎসক, ১১ নার্স মোট ২৮ জন স্বাস্থ্যকর্মীকে কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। বুধবার হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়কের জারি করা অফিস আদেশে এই কথা জানানো হয়।

বৃহস্পতিবার (৩০ এপ্রিল) হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. দিলীপ কুমার রায় এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো এসব ডাক্তার ও নার্স করোনাভাইরাস শনাক্ত হওয়া রোগীদের কনটাক্টে এসেছিলেন। হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. আরিফ আহমেদের সঙ্গে যোগাযোগ করে পর্যায়ক্রমে এই হাসপাতালের সবার নমুনা পরীক্ষা করতে বলা হয়েছে।

ডা. দিলীপ কুমার রায় বলেন, করোনা আক্রান্ত দুই রোগীর সংস্পর্শে যেসব ডাক্তার, নার্স ও কর্মচারী এসেছিলেন তাদের শনাক্ত করে কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। ১১ জন ডাক্তার ও ১১ জন নার্স ছাড়াও পরিচ্ছন্নতাকর্মী, ওয়ার্ড বয় ও আয়া মিলিয়ে মোট ২৮ জনকে কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। কোয়ারেন্টাইনের মেয়াদ হবে ১৪ দিন। এই সময়কালে তাদের সব ধরনের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। এমন পরিস্থিতিতে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ প্রাথমিক পদক্ষেপ হিসেবে করোনারি কেয়ার ইউনিট ও মেডিসিন ওয়ার্ড লকডাউন করে দেন। গুরুত্বপূর্ণ ইউনিট দুটি জীবাণুমুক্ত করার পদক্ষেপও নেওয়া হয়। ওই দুই স্থানে চিকিৎসাধীন রোগীদের স্থানান্তর করা হয় অন্য ওয়ার্ডে।

গত কয়েকদিনে শনাক্ত হওয়া করোনা পজেটিভদের বেশ কয়েকজনকে যশোর টিবি হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। যারা ওই হাসপাতালে যেতে অনাগ্রহ প্রকাশ করেছেন, তাদের নিজ নিজ বাড়িতে চিকিৎসাধীন রাখা হয়েছে।

যশোর টিবি হাসপাতালকে অস্থায়ী করোনা হাসপাতাল হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে। এখানে করোনাভাইরাস আক্রান্তদের সেবার কাজে নিয়োজিতরা পাশেই নাজির শঙ্করপুরে অবস্থিত শেখ হাসিনা সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্কের ডরমেটরিতে অবস্থান করছেন।

Continue Reading

Uncategorized

যে চারটি বেসরকারি হাসপাতালে হবে করোনাভাইরাস পরীক্ষা

DENTALTIMESBD.com

Published

on

বেসরকারি হাসপাতালে হবে করোনাভাইরাস পরীক্ষা

দেশে কোভিড-১৯ এর প্রকোপ বাড়তে থাকায় পরীক্ষার আওতা বাড়ানোর জন্য প্রথমবারের মত চারটি বেসরকারি হাসপাতালকে করোনাভাইরাস পরীক্ষা এবং চিকিৎসার অনুমতি দিয়েছে সরকার।

এর মধ্যে ঢাকার এভারকেয়ার হাসপাতাল (সাবেক অ্যাপোলা), স্কয়ার হাসপাতাল ও ইউনাইটেড হাসপাতাল শুধু তাদের ভর্তি রোগীদের নমুনা পরীক্ষা করবে।

আর নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের ইউএস-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসাপাতাল বাইরের রোগীদের নমুনাও পরীক্ষা করতে পারবে।

বুধবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।

তিনি বলেন, “তারা যে নমুনা পরীক্ষা করবেন আমরা তা আগামীকাল থেকে অথবা যখন তারা কাজ শুরু করবেন তখন থেকে হিসাবে যুক্ত করব।”

তিনটি হাসপাতালকে বাইরের রোগীর নমুনা পরীক্ষার অনুমতি না দেওয়ার কারণ ব্যাখ্যা করে নাসিমা সুলতানা বলেন, “অনেক ক্ষেত্রে ফলোআপে সমস্যা হতে পারে, সে কারণে তাদের এখনও তাদের আউটডোর পেশেন্টের নমুনা পরীক্ষার অনুমতি দেওয়া হয়নি।”

এই চারটি বেসরকারি হাসপাতাল মিলিয়ে দেশে সব মিলিয়ে এখন ২৯টি মেডিকেল প্রতিষ্ঠানে করোনাভাইরাসের নমুনা পরীক্ষার ব্যবস্থা হল।

বুধবার সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় দেশে রেকর্ড ৬৪১ জনের মধ্যে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়ায় আক্রান্তের মোট সংখ্যা বেড়ে ৭১০৩ জন হয়েছে। এই সময়ে আরও আটজনের মৃত্যুর মধ্য দিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৬৩ জন হয়েছে।

Continue Reading

Uncategorized

২৪ ঘণ্টায় আরও ৮ জনের মৃত্যু, নতুন আক্রান্ত ৬৪১

DENTALTIMESBD.com

Published

on

অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা

দেশে মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও আটজন মারা গেছেন। এ নিয়ে ভাইরাসটিতে মোট ১৬৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হিসেবে নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন আরও ৬৪১ জন। ফলে দেশে করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা সাত হাজার ১০৩ জন।

বুধবার (২৯ এপ্রিল) দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদফতরের করোনাভাইরাস সংক্রান্ত নিয়মিত হেলথ বুলেটিনে এ তথ্য জানানো হয়। অনলাইনে বুলেটিন উপস্থাপন করেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।

তিনি জানান, করোনাভাইরাস শনাক্তে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও চার হাজার ৯৬৮টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। সব মিলিয়ে নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৫৯ হাজার ৭০১টি। নতুন যাদের নমুনা পরীক্ষা হয়েছে, তাদের মধ্যে আরও ৬৪১ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। ফলে মোট করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন সাত হাজার ১০৩ জন। আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে মারা গেছেন আরও আটজন। ফলে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৬৩ জনে। এছাড়া সুস্থ হয়েছেন আরও ১১ জন। ফলে মোট সুস্থ হয়েছেন ১৫০ জন।

যারা নতুন করে মারা গেছেন, তাদের মধ্যে ছয়জন পুরুষ এবং দুজন নারী। ছয়জন ঢাকার বাসিন্দা এবং দুজন ঢাকার বাইরের। বয়সের দিক থেকে চারজন ষাটোর্ধ্ব, দুজন পঞ্চাশোর্ধ্ব এবং দুজন ত্রিশোর্ধ্ব।

করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঝুঁকি এড়াতে সবাইকে ঘরে থাকার এবং স্বাস্থ্য অধিদফতর ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পরামর্শ-নির্দেশনা মেনে চলার অনুরোধ জানানো হয় বুলেটিনে।

প্রায় চার মাস আগে চীনের উহান থেকে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাস এখন গোটা বিশ্বে তাণ্ডব চালাচ্ছে। চীন পরিস্থিতি অনেকটাই সামাল দিয়ে উঠলেও এখন মারাত্মকভাবে ভুগছে ইউরোপ-আমেরিকা-এশিয়াসহ বিশ্বের অন্যান্য অঞ্চল। এ ভাইরাসে বিশ্বজুড়ে আক্রান্তের প্রায় সাড়ে ৩১ লাখ। মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে দুই লাখ ১৮ হাজার। তবে নয় লাখ ৬১ হাজারের বেশি রোগী ইতোমধ্যে সুস্থ হয়েছেন।

গত ৮ মার্চ বাংলাদেশে প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। এরপর প্রথম দিকে কয়েকজন করে নতুন আক্রান্ত রোগীর খবর মিললেও এখন লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে এ সংখ্যা। বাড়ছে মৃত্যুও।

প্রাণঘাতী এই ভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করেছে সরকার। নিয়েছে আরও নানা পদক্ষেপ। যদিও এরই মধ্যে সীমিত পরিসরে ঢাকাসহ বিভিন্ন এলাকার কিছু পোশাক কারখানা সীমিত পরিসরে খুলতে শুরু করেছে। তবে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা নিশ্চিত করা না গেলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে থাকবে কি-না, তা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন বিশেষজ্ঞরা।

অন্যান্য

Continue Reading

জনপ্রিয়