Connect with us

সংগঠন

ডাক্তাদের দাবির একমত জানিয়ে স্বাস্থ্য পুলিশ গঠনের দাবি বিএমএ

DENTALTIMESBD.com

Published

on

DentalTimes

আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী দিয়ে বা পৃথক স্বাস্থ্য পুলিশ গঠন করে চিকিৎসাসেবা প্রতিষ্ঠানের নিরাপত্তা চেয়েছে বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন (বিএমএ)।

‘চিকিৎসকের অবহেলায় রোগী মৃত্যুর’ অভিযোগে চিকিৎসক ও চিকিৎসা প্রতিষ্ঠানের ওপর হামলায় উদ্ভূত পরিস্থিতি নিয়ে এক সংবাদ সম্মেলন করে এসব দাবি জানায়। রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবে মঙ্গলবার বিকেলে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী আফিয়া জাহিন গত ১৮ মে রাজধানীর গ্রিন রোডের সেন্ট্রাল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। এজন্য হাসপাতালে ভাঙচুর চালান বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। পরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর আমজাদ আলী বাদী হয়ে ওই চিকিৎসকদের বিরুদ্ধে মামলা করেন।
সংবাদ সম্মেলনে সেন্ট্রাল হাসপাতালের দায়ের করা এজাহারকে মামলা হিসেবে গ্রহণ ও চিকিৎসকদের প্রতি গণমাধ্যমের দায়িত্বশীল আচরণসহ ছয়টি দাবি জানানো হয় এ সময়।

বিএমএর দাবিগুলোর মধ্যে রয়েছে ভিডিও ফুটেজ দেখে সেন্ট্রাল হাসপাতালের চিকিৎসকদের ওপর হামলার মামলা গ্রহণ ও অপরাধীদের গ্রেপ্তার। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃক দায়ের করা মামলার দ্রুত নিষ্পত্তি এবং চিকিৎসকের অবহেলায় রোগী মারা যাওয়ার ভুল খবর প্রচার করলে ক্ষতিপূরণ-ব্যবস্থার দাবিও করা হয়। এখন পর্যন্ত যত চিকিৎসক চিকিৎসা প্রতিষ্ঠানের ওপর হামলা হয়েছে, তার সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ। এ ছাড়া ‘কৃত্য পেশাভিত্তিক মন্ত্রণালয়’ গঠনেরও দাবি জানানো হয়।

বিএমএর মহাসচিব ইহতেশামুল হক চৌধুরী সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন। সেখানে তিনি বলেন, কর্মস্থলে চিকিৎসকেরা প্রায়ই হামলা ও লাঞ্ছনার শিকার হচ্ছেন। কিন্তু রাষ্ট্র ও নির্বাহী বিভাগ কোনো নিরাপত্তার ব্যবস্থা রাখেনি। প্রতিবাদ করলে শাস্তি দেওয়ার হুমকি দিচ্ছে। তিনি আরও বলেন, ‘নিজেরা যেখানে অপরাধী ও যাদের কার্যক্রম প্রশ্নবিদ্ধ, তারাই আবার প্রশ্ন করে চিকিৎসকদের, কারণ দর্শাতে বলে নিয়মভঙ্গের।’

চিকিৎসকের অবহেলায় মারা গেলে সেই চিকিৎসকের বিরুদ্ধে বিএমএর ব্যবস্থা গ্রহণ সম্পর্কে এক প্রশ্নের জবাবে মহাসচিব বলেন, বিএমএর এ ব্যবস্থা নেওয়ার এখতিয়ার নেই। এটা (বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যান্ড ডেন্টাল কাউন্সিল) বিএমডিসি দেখে।

বিএমএ কাউকে প্রতিপক্ষ মনে করে না উল্লেখ করে ইহতেশামুল হক চৌধুরী বলেন, সংবাদপত্র থেকে দায়িত্বশীল আচরণ চান। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় মামলা তুলে নিয়েছে প্রসঙ্গটি তুললে তিনি বলেন, ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন মামলা প্রত্যাহার করল, সেটা তারাই জানে। কেউ আপস করলেই সব শেষ হয়ে যায় না।’

বিএমএ সভাপতি মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিনের সভাপতিত্বে এ সংবাদ সম্মেলন থেকে বলা হয়, চিকিৎসকদের কর্মক্ষেত্রে নিরাপত্তা নিশ্চিত না করা হলে তাঁরা যেকোনো কর্মসূচিতে আন্দোলনে নামবেন।

সূত্র: ডাক্তার প্রতিদিন

সংগঠন

বিএমএ ও স্বাচিপের চার শীর্ষ নেতার যৌথ বিবৃতি

DENTALTIMESBD.com

Published

on

DentalTimes

সাম্প্রতিক সময়ে চিকিৎসক নেতৃবৃন্দের বিরুদ্ধে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের একজন কর্তাব্যক্তির বক্তব্যকে অযাচিত আখ্যা দিয়ে এ বিষয়ে যৌথ বিবৃতি দিয়েছে চিকিৎকদের দুই শীর্ষ সংগঠন বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশন (বিএমএ) ও স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের (স্বাচিপ) শীর্ষ চার নেতা।

মঙ্গলবার (২০ অক্টোবর) বিএমএ সভাপতি ডাঃ মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন ও মহাসচিব ডাঃ ইহতেশামুল হক চৌধুরী এবং স্বাচিপ সভাপতি অধ্যাপক ডাঃ এম ইকবাল আর্সলান ও মহাসচিব অধ্যাপক ডাঃ এম এ আজিজ স্বাক্ষরিত যৌথ বিবৃতিতে বলা হয়, সাম্প্রতিক সময়ে চিকিৎসক নেতৃবৃন্দের বিরুদ্ধে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের একজন কর্তাব্যক্তির অযাচিত বক্তব্য দৃষ্টিগোচর হয়েছে। অত্যন্ত দুঃখের সাথে পরিলক্ষিত হচ্ছে যে, যখনই দেশের কল্যাণে প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত আন্তঃক্যাডার বৈষম্য দূরীকরণের কথা বলা হয়, যখনই স্বাস্থ্য ক্যাডারসহ অন্য ক্যাডারে প্রশাসন ক্যাডারের নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে পার্শ্ব অন্তর্ভুক্তির বিরুদ্ধে কথা বলা হয়, যখনই চিকিৎসকদের পদমর্যাদা, চাকরিবিধি অনুযায়ী পদোন্নতির কথা বলা হয়, যখনই মন্ত্রণালয়ের দুর্নীতির বিষয়টি সকলের দৃষ্টিগোচরে আসে, যখনই পদোন্নতির ক্ষেত্রে যোগ্যতা, জ্যেষ্ঠতা, দক্ষতার পাশাপাশি মুক্তিযুদ্ধের আনুগত্যের কথা বলা হয় তখনই ঢালাওভাবে চিকিৎসক নেতাদের বিরুদ্ধে বক্তব্য দিয়ে প্রশাসনের কর্তাব্যক্তিরা মূল বিষয়গুলো আড়াল করার অপপ্রয়াসে লিপ্ত হন।

বিবৃতিতে তারা আরও বলেন, চিকিৎসকদের মানমর্যাদা ও অধিকার ক্ষুণ্ন হয় এমন কোনো কাজ কিংবা সরকারের পদায়ন নীতিমালা কিংবা ক্যাডার বৈষম্য সৃষ্টিকারী যেকোনো কর্মকাণ্ডের অথবা স্বাধীনতা বিরোধীদের পুনর্বাসন কল্পে যে কোন আদেশ নির্দেশের বিরুদ্ধে তাদের অবস্থান অতীতেও ছিল এবং ভবিষ্যতেও থাকবে।

Continue Reading

সংগঠন

মসজিদে এসি বিস্ফোরণেরঘটনায় রক্ত প্রয়োজন

নিজস্ব প্রতিনিধি

Published

on

DentalTimes

নারায়নগঞ্জে একটি মসজিদে এসি বিস্ফোরণের ঘটনায়, অনেকেই অগ্নিদগ্ধ এবং আহত হয়েছেন । আহতদেরকে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ণ ও প্লাস্টিক সার্জারি ইন্সটিটিউটে চিকিৎসার জন্যে আনা হয়েছে। চিকিৎসাকার্যে এখন প্রচুর পরিমাণে রক্তের প্রয়োজন।

গত ৪ সেপ্টেম্বর মেডিসিন ক্লাবের কেন্দ্রীয় পরিষদের এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এমনটাই জানিয়েছে। সভাপতি মোঃ আরমান হোসেন এবং সাধারণ সম্পাদক বাসারাত কাউছার ফাহিম স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে আরো জানানো হয়,

আজ ০৫ সেপ্টেম্বর সকাল ৮টা থেকে, রক্তদাতাদের জন্যে অপেক্ষা করবে তারা। সাধারণ মানুষের সাড়া ব্যতীত কিছুই করা সম্ভব নয় ।আমরা চাই কাল সকাল থেকে রক্তদাতাদের ঢল আসুক,রক্তের জন্যে যেন আহত কেউ পীড়িত না হন।

রক্তদানের স্থানঃ শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ণ ও প্লাস্টিক সার্জারি ইন্সটিটিউট, ঢাকা।

যেকোনো প্রয়োজনে নির্ধারিত মোবাইল নম্বরে যোগাযোগ করার অনুরোধ করাহয়েছে।।

01713260032
01521332988
01701060894
01778132540
01833326593
01928202292

Continue Reading

সংগঠন

উত্তরের বন্যা এবং নদীভাঙ্গা মানুষদের পাশে উচ্ছ্বাস

নিজস্ব প্রতিনিধি

Published

on

DentalTimes

দেশের ডেন্টাল ডাক্তার এবং শিক্ষার্থীদের দ্বারা পরিচালিত অন্যতম সাংস্কৃতিক ও মানবিক সংগঠন “উচ্ছ্বাস” বন্যার্তদের সহায়তায় “আমাদের উচ্ছ্বাস”- নামক কর্মসূচির আয়োজন করে।
উত্তরের ব্যাপক বন্যা ও নদী ভাঙন কবলিত জেলা লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলার মহিষখোচা ইউনিয়নের কূটির পার নামক গ্রামে এ কর্মসূচিটি পালিত হয়।

ত্রান বিতরণ কর্মসূচিটি মহিষখোচা বালাপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বেলা ১১ ঘটিকা থেকে অনুষ্ঠিত হয়।আদিতমারী উপজেলা প্রশাসন এবং মহিষখোচা ইউনিয়ন পরিষদ উক্ত কর্মসূচীতে সহায়তা করে।

উচ্ছ্বাসের পক্ষ থেকে ৬০ টি পরিবারকে সহায়তা প্রদান করা হয়।যার মধ্যে ছিল প্রয়োজনীয় বাজার,ওষুধ এবং পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট।

এ আয়োজনে উপস্থিত এবং সার্বিক তদারকিতে ছিলেন উচ্ছাসের আহবায়ক নাহিদ ইসলাম এবং যুগ্ম আহবায়ক শাহরিয়ার রহমান।এছাড়াও উচ্ছ্বাস প্রতিনিধি দল উপস্থিত ছিলেন।

Continue Reading

জনপ্রিয়